মেরুদণ্ড সুস্থ রাখুন, পিঠে ব্যথা দূর করুন ৫ টি সহজ কাজে…ডা. সুমন চন্দ্র দত্ত ।

 

 

মেরুদণ্ডের ব্যথা অনেক মারাত্মক পর্যায়ে না যাওয়া পর্যন্ত অনেকেই একে গুরুত্ব সহকারে দেখেন না। অল্প সময়ের ব্যথা ভেবে চুপচাপ থাকেন এবং ভুল করেন। কারণ এই ব্যথা ধীরে ধীরে মারাত্মক আকার ধারন করতে পারে এবং সঠিক পদক্ষেপ না নিলে মেরুরজ্জ ক্ষয় হওয়া এবং মেরুরস শুকিয়ে যাওয়ার মত ভয়াবহ রোগ হতে পারে। আজ জেনে নিন কী করে মেরুদণ্ড সুস্থ রাখতে পারবেন ও ব্যথা থেকে থাকবেন দূরে।

অনেকেই আছেন যারা বেশ অল্প বয়সেই মেরুদন্ডে ব্যথার শিকার হন। হাড়ের দুর্বলতা জনিত কারণে অথবা নিজের অসতর্কতামূলক কাজে বেশীরভাগ মানুষ মেরুদণ্ড ব্যথায় ভুগে থাকেন। কিন্তু এই মেরুদণ্ডের ব্যথা অনেক মারাত্মক পর্যায়ে না যাওয়া পর্যন্ত অনেকেই একে গুরুত্ব সহকারে দেখেন না। অল্প সময়ের ব্যথা ভেবে চুপচাপ থাকেন এবং ভুল করেন। কারণ এই ব্যথা ধীরে ধীরে মারাত্মক আকার ধারন করতে পারে এবং সঠিক পদক্ষেপ না নিলে মেরুরজ্জ ক্ষয় হওয়া এবং মেরুরস শুকিয়ে যাওয়ার মত ভয়াবহ রোগ হতে পারে। তাই আজ জেনে নিন মেরুদণ্ডের সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় কিছু কাজের তালিকা।

বালিশের দিকে লক্ষ্য রাখুন
ঘুমের সময় মাথায় বালিশ নিয়ে ঘুমানোর সামান্য ত্রুটির কারণেও মেরুদণ্ডের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। বালিশ বেশি উঁচু হলে মেরুদণ্ডে চাপ পড়ে। তাই বালিশ এমনভাবে নির্বাচন করুন যাতে শোয়ার সময় মেরুদণ্ড সোজা থাকে। চিৎ হয়ে ঘুমানোর অভ্যাস থাকলে হাঁটুর নিচে আরেকটি বালিশ রাখুন। কাত হয়ে ঘুমানোর অভ্যাস থাকলে হাঁটুর মাঝে বালিশ রাখার চেষ্টা করুন।
সতর্কতার সাথে ব্যায়াম করুন
অনেকেই ব্যায়াম করেন সুস্বাস্থ্যের জন্য। কিন্তু বেশিভাগ সময়েই ব্যায়ামের সঠিক নিয়ম পালন করতে দেখা যায় না অনেককে। ব্যায়াম করার সময় সতর্কতা অবলম্বন করুন। মেরুদণ্ডে বেশি চাপ পড়ে এমন ব্যায়াম করা থেকে বিরত থাকুন।
একটানা একভাবে বেশিক্ষণ বসে থাকবেন না
কাজের সময় আমরা একটানা একভাবে বসে কতোক্ষণ সময় পার করি তা আমরা অনেকেই হিসাব করি না। কিন্তু একটানা একভাবে বসে থাকা আমাদের মেরুদণ্ডের মারাত্মক ক্ষতি করে। তাই কাজের ফাঁকে উঠে দাঁড়াবেন কিংবা খানিকক্ষণ হাঁটবেন। নিতান্তই না পারলে একটু পর পর বসার স্টাইল পরিবর্তন করুন।

ভিটামিন ডি
ভিটামিন ডিএর স্বল্পতা হাড়কে করে তোলে ভঙ্গুর। গবেষণায় দেখা যায় যারা মেরুদণ্ডের সমস্যা নিয়ে ডাক্তারের কাছে যান তাদের ৮০% মানুষই ভিটামিন ডি সল্পতার কারণে মেরুদণ্ডের সমস্যায় পড়েন। তাই ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার খান এবং সকালের মিষ্টি রোদ গায়ে লাগানোর ব্যবস্থা করুন।
ক্রাঞ্চ করুন
ক্রাঞ্চ প্রায় ৭৫% পর্যন্ত মেরুদণ্ডের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে। তাই ব্যায়ামের তালিকায় রাখুন ক্রাঞ্চ। একটি সমতল জায়গায় লম্বা হয়ে শুয়ে পড়ুন। এরপর মাথার পেছনে দু হাত দিয়ে হাতু ভাঁজ করুন। এই অবস্থায় মাথাসহ দেহের উপরিভাগ উপরে তুলুন। এই ব্যায়ামটি মেরুদণ্ডের জন্য বেশ কার্যকরী একটি ব্যায়াম।……………………..ডা.সুমন চন্দ্র দত্ত । এমবিবিএস, বিসি এস স্বাস্থ্য সি. সিডি ডায়াবেটিকস বারডেম
হাসপাতাল ঢাকা। ডি অর্থো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ব বিদ্যালয় (পিজি হাসপাতাল) আই এম ও
অর্থোপেডিকস বিভাগ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, অর্থোডেপিকস কনসালটেন্ট ও ট্রমা মেডিসিন. বিশেষজ্ঞ
সার্জন, হাড়জোড়া, হাড়ভাঙা, বাত ব্যাথা, হাটু ব্যাথা, হাড়ক্ষয়, ঘাড় ব্যাথা, কোমড় ব্যাথা, মেরুদন্ড,
ব্যাথা, ও ডায়াবেটিকস বিশেষজ্ঞ । রেজি নং এ ৫৯০৫১ রোগী দেখার সময়- রোগী দেখার সময়ঃরবিবার,মঙ্গলবার, বুধবার দুপুর ২.৩০….-৫.৩০মিনিট,………শুক্রবার সারাদিন।। চেম্বার : আগমন মেডিকেল সেন্টার, দেবিদ্বার সুপার মার্কেট ২য় তলা সরকারী কলেজ রোড,
দেবিদ্বার….. 01765045085…./01818580206

 

 

 

Categories: লাইফস্টাইল