ইয়ারপুর গণমানুষের আস্থাভাজন কবির সরকার

ইয়ারপুর গণমানুষের আস্থাভাজন কবির সরকার

মশিউর রহমান, সাভারঃ আশুলিয়ায় ইয়ারপুরে মোঃ কবির হোসেন সরকার হলেন একজন আস্থাভাজন ব্যক্তিত্ব বলে মনে করেন এখানকার সাধারন জনতা।

সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে তার জন্ম হয়। বাবা মরহুম গিয়াস উদ্দিন সরকার। তার দাদা ছিলেন মরহুম সবেদ আলী সরকার তৎকালীন সাভার থানা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ।

কবির সরকার দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহবায়কের দ্বায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি দলীয় কর্মসূচী সফলভাবে পালনে একধাপ এগিয়ে। বিগত সালে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা হরতাল ও অবরোধ ঠেকাতে মাঠে রেখেছেন অগ্রণী ভূমিকা। শুধু এখানেই তিনি ক্ষ্যন্ত নন, গরীব-দুঃখী ও অসহায়দের পাশে ছিলেন। এছাড়াও মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণে জমিও দান করেছেন। ইতিমধ্যে তিনি জনসেবার মাধ্যমে জয় করেছেন সাধারন মানুষের আস্থা ও ভালোবাসা। এজন্যই ইয়ারপুরবাসী তাকে আগামী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চান।

এখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, যুবলীগ নেতা কবির সরকারকে আমরা বিপদে-আপদে সবসময় কাছে পেয়েছি। আগামীতে তিনি ইয়ারপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান হলে এলাকার অনেক উন্নয়ন হবে। তিনি নিজের জন্য আসেননি এসেছেন জনসেবা করতে। যারফলে তিনি ব্যপক জনপ্রিয়তা অর্জণে সক্ষম হয়েছেন। এই জনপ্রিয়তা দেখে এক শ্রেণি কুচক্রী মহল ঈর্ষান্বিত হয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে অপ-প্রচারে নেমেছেন। তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে নিজেদের কু-স্বার্থ হাসিলের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন। কয়েকটি অনলাইনে তাকে জড়িয়ে ষড়যন্ত্রমূলক অপ-প্রচার চালানো হচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এছাড়া যুবলীগ নেতাকর্মীরা জানান, কবির হোসেন সরকার জনপ্রিয়তা,দলের প্রতি আস্থা,কর্মী বান্ধব নেতা ও সমাজ সেবক হিসেবে যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েই তিনি আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়কের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।
বর্তমানে আশুলিয়া থানা যুবলীগকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়েছেন। তার এই সফলতা ও জনপ্রিয়তাকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এক শ্রেণির কূচক্রীমহল তার বিরুদ্ধে অপ-প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। আমরাও এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আগামীতে আমরা তাকে ইয়ারপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই।

Categories: ঢাকা

Tags: