কুমিল্লায় প্রেমিককে পেতে স্বামীকে হত্যা করে নববধু জেলে

কুমিল্লায় প্রেমিককে পেতে স্বামীকে হত্যা করে নববধু জেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক : জেলার মুরাদনগরে হাতের মেহেদির রং না শুকাতেই বিয়ের ৩ সপ্তাহ পরেই পরকীয়ার টানে স্বামীকে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে নববধূ একা রানী দাস। মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার ছালিয়াকান্দি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত অনিক লাল দাস (২৩) কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলার মোহনপুর গ্রামের মানিক লাল দাসের ছেলে। এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে নিহতের পিতা বাদী হয়ে পুত্রবধূ একা রানী দাস, পিতা নরেশ চন্দ্র দাস ও পরকীয়া প্রেমিক টিটু দাস সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মুরাদনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘাতক একা রানী দাসকে গ্রেফতার করে প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে হত্যার দায় স্বীকার করে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ দিন পূর্বে মুরাদনগর উপজেলার ছালিয়াকান্দি গ্রামের নরেশ চন্দ্র দাসের মেয়ে একা রানী দাসের সাথে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিয়ে হয় চান্দিনা উপজেলার মোহনপুর গ্রামের মানিক লাল দাসের ছেলে অনিক লাল দাসের সাথে। কিন্তু বিয়ের আগে থেকেই একা রানী দাস মোবাইল ফোনের মাধ্যমে টিটু দাস নামের এক যুবকের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। স্বামীর বাড়ীতে থেকেও সেই প্রেমিক টিটু দাসের সাথে নিয়মিত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে আসছিল। এরই মধ্যে একা রানী দাস ও টিটু দাস মিলে মোবাইল ফোনে স্বামী অনিক লাল দাসকে হত্যার পরিকল্পনা করে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী মঙ্গলবার যৌন উত্তেজক ট্যাবলেটের কথা বলে একটি কীটনাশক ট্যাবলেট খাইয়ে দেয় স্বামী অনিক লাল দাসকে। পরে অনিক লাল মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট শুরু করলে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে রায়পুর একটি হসপিটালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মনজুর আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নিহতের পিতা মানিক লাল দাসের অভিযোগের ভিত্তিতে ঘাতক স্ত্রী একা রানী দাসকে আটক করে কুমিল্লা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Categories: কুমিল্লা

Tags: