এবার ফেঁসেগেলেন আনসার ভিডিপি ব্যাংক কর্মকর্তা ;  লোনের নামে অর্থ বানিজ্য 

এবার ফেঁসেগেলেন আনসার ভিডিপি ব্যাংক কর্মকর্তা ;  লোনের নামে অর্থ বানিজ্য

কুমিল্লা প্রতিনিধি : কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক চৌদ্দগ্রাম শাখা থেকে লোন দেওয়ার কথা বলে এক ব্যাক্তির কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়।
আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়সহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরিত ভোক্তভোগীর অভিযোগ থেকে জানা যায়, চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের জামপুর গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে মোঃ হোসেন আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক চৌদ্দগ্রাম শাখা থেকে ১০ লক্ষ টাকা লোন নেওয়ার জন্য আবেদন করেন। এসময় এ শাখার ব্যবস্থাপক মোঃ জহির উদ্দিন বাবর ৮ লক্ষ টাকা লোন মঞ্জুর করেন এবং মোঃ হোসেন এর কাছ থেকে ৭৫ হাজার টাকা কিস্তির সাথে সমন্বয় করার কথা বলে নিয়ে নেন। পরবর্ত্তিতে ওই টাকা সমন্বয় না করে লোন বাবদ উৎকোচ দেওয়া লাগে বলে ওই টাকা সমন্বয় করবেনা বলে জানায়। এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে ভোক্তভোগি মোঃ হোসেন আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন। এদিকে মিয়াবাজার ওবায়দুল্লাহ সুপার মার্কেটের লেপ দোকাদার মৃত রফিক মিয়ার এস ডিপিএস জমাকৃত প্রায় ২১ হাজার টাকা, টিন দোকানদার আবদুল করিম ও ফজলুলহক মেম্বার দুজনের প্রায় ৩৮হাজার টাকা বাউসার কারচুপি করে হাতিয়ে নেয়। পরে সালিশের মাধ্যামে এসব টাকা ফেরত দেওয়া হয়। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক চৌদ্দগ্রাম শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ জহির উদ্দিন বাবর বলেন, এ বিষয়টি সত্য নয়। আমাকে ষড়যন্ত্র করে ফাসাঁনোর চেষ্টা করা হচ্ছে।
এ বিষয়ে আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক আঞ্চলিক কার্যালয়ের রিজোনাল ম্যানেজার (আর এম ও) সিরাজুল হক সিরাজ জানান, এবিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি তা তদন্ত করে প্রমাণ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Categories: কুমিল্লা

Tags: