কুমিল্লায় গৃহবধূকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ শিক্ষক স্বামীর বিরুদ্ধে

কুমিল্লায় গৃহবধূকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ শিক্ষক স্বামীর বিরুদ্ধে

স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লা মহানগরীর ১২ নং ওয়ার্ড রানীর দীঘির পূর্বপাড় অন্যেষা কোচিং সেন্টারের ৬ষ্ট তলার ভাড়া বাসা থেকে হাফছা আক্তার (২৬) নামের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ ঘটিকার সময় রানীর দীঘির পূর্ব পাড় অন্যেষা কোচিং সেন্টারের ৬ষ্ট তলার বাসায় ফ্যানের সাথে হাফছার মরদেহ ঝুলে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে পাঠায়। নিহত হাফসার বাড়ি কুমিল্লা লালমাই বলে জানা যায়।
নিহত আফছা আক্তারের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঘাতক স্বামী গোলাম মাওলা ফারুক, শাশুড়ি খোদেজা বেগম, ননদ সালমা আক্তারসহ সকলে যোগসাজসে হাফছাকে নির্যাতন শেষে গলাটিপে হত্যা করে। হত্যার পর মৃত নিশ্চিত করে ঘরের ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে আত্বহত্যা করেছে বলে অপপ্রচার চালায়। ঘাতকদয়ের বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম।
এ বিষয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ মো: আনোয়ারুল হক বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য (কুমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন না পেলে নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাচ্ছেনা।

Categories: কুমিল্লা

Tags: