কমলগঞ্জে সবজির বাজার চড়া, দুর্ভোগে নিন্ম আয়ের লোকজন

কমলগঞ্জে সবজির বাজার চড়া, দুর্ভোগে নিন্ম আয়ের লোকজন

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে গত ১২ জুলাই থেকে দু’দফা বন্যায় কৃষি অধ্যুষিত টানা বর্ষন ও উজানের পাহাড়ি ঢল নেমে সবজি ক্ষেত, আউশ ও বীজতার ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। ফলে বাজারে এর মারাত্মক প্রভাব পড়েছে বলে ভোক্তারা অভিযোগ তোলেছেন। সব ধরণের সবজির চড়া দামে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন ভোক্তা সাধারণ। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়েছেন নিন্মে আয়ের লোকজন।
সরেজমিন সবজি বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাজারে সবজির পরিমাণ তোলনামুলক কম থাকায় দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। বন্যার পূর্বে বাজারে ঢেড়শ প্রতি কেজি ৩০ টাকা থেকে বন্যার পর বৃদ্ধি পেয়ে ৬০ টাকা হয়েছে। মুখি ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ৫০ টাকা, বরবটি ৩০ টাকা থেকে বেড়ে ৬০ টাকা, করলা ৫০ টাকা থেকে বেড়ে ৮০ টাকা, টমেটো ৮০ টাকা থেকে বেড়ে ১২০ টাকা, পেঁপে ২০ টাকা থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে মিষ্টি কুমড়া প্রতি পিছ ৬০ টাকা থেকে বেড়ে ১২০ টাকা, চাল কুমড়া ছোট সাইজের ২৫ টাকা থেকে ৪০ টাকা, ছোট লাউ ৩০ টাকা থেকে বেড়ে ৬০ টাকা, শশা ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ৬০ টাকায় উন্নীত হয়েছে।
সবজির বাজারে দাম বেড়ে যাওয়ায় নিন্মে আয়ের লোক ও ভোক্তারা দিশেহারা হয়ে পড়ছেন। শমশেরনগর বাজারের ভোক্তা মো. আলমগীর, রুমেল মিয়া, অনিরুদ্ধ প্রসাদ রায় চৌধুরী, জয়নাল আবেদীন, গৃহিনী শিরীন আক্তার বলেন, এখন বাজারে সবজির দাম চড়া হয়েছে। ফলে আয়ের সাথে ব্যয়ের তারতম্য সম্ভব হচ্ছে না। অনেক সময় চাহিদা মতো সবজি কেনা যায় না।
সবজি ব্যবসায়ী ইউনুস মিয়া ও দুলাল আহমদ বলেন, টানা বর্ষনে উচু স্থানের সবজি ক্ষেত বিনষ্ট হয়েছে। তাছাড়া বন্যায় ব্যাপক এলাকার শাকসবজি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় বাজারে এর প্রভাব পড়েছে।
কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান বলেন, বন্যায় কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় বাজারে সবজির দাম সামান্য বেড়েছে। সবজি, বীজতলা ও আউশের ক্ষয়ক্ষতি সত্ত্বর, আশি লাখ টাকার মতো হবে। তবে কৃষি প্রণোদনা আসলে প্রকৃতদের মধ্যে তা বন্ঠন করা হবে।

Categories: ব্যবসা ও অর্থনীতি,সিলেট

Tags: ,