আশুলিয়ার নরসিংহপুর হাঁটে আসতে শুরু করেছে গরু

আশুলিয়ায় জমজমাট হয়ে উঠছে নরসিংহপুর পশুর হাঁট

মশিউর রহমানঃ আর ১১দিন পরে পবিত্র ঈদুল আযহা। এই ঈদকে ঘিরে ইতিমধ্যে কোরবানীর পশু আসতে শুরু করেছে আশুলিয়ার হাঁটগুলোতে। এই হাঁটের মধ্যে ইয়ারপুর ইউনিয়ন এর ঐতিহ্যবাহী নরসিংহপুর বটতলা পশুর হাঁট। প্রতিবছর কোরবানীতে বিভিন্ন জেলা থেকে এই হাঁটে নানা প্রজাতির পশুর সমাগম হয়।

এবারের কোরবানীকে ঘিরে এখানকার হাঁটে আসতে শুরু করেছে কোরবানীর পশু। এই হাঁটে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বেপারীরা নিয়ে এসেছেন দেশীয় জাতের পশু। ক্রেতা-বিক্রেতার সরগরম হয়ে উঠতে শুরু করেছে হাঁট এলাকা।

গরুর বেপারীরা জানায়, নরসিংহপুর বটতলা গরুর হাঁট একটি ঐতিহ্যবাহী পশুর হাঁট। এই হাঁটে একদিকে নিরাপত্তা ও থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা ভালো। অন্যদিকে এখানে বেচা-বিক্রি ভালো হয় বিধায় দামও ভালো পাওয়া যায়। তাই প্রতিবার ঈদে এই হাঁটে আসি। তবে এখনো হাঁটে বেচা বিক্রি শুরু হয়নি এবং ক্রেতাসাধারণ আসতে শুরু করেনি। তবে দুই-তিনদিন পরে বেচা-বিক্রি শুরু হবে। সেই সাথে ক্রেতাসাধারণ আসতে শুরু করবে। ভারতীয় গরু না আসলে এবার দেশীয় গরুর বাজার ভালো যাবে বলে ব্যাপারীরা আশাবাদি।

নরসিংহপুর বটতলা পশুর হাঁট ইজারাদার মোঃ নূরুল আমীন সরকার জানান, আমাদের এখানে কোরবানীর পশু বহনকারী যানবাহন
চলাচলের ব্যবস্থা ভালো। সর্বোচ্চ নিরাপত্তা প্রদান এবং হয়রানী মুক্ত পরিবেশে পশু কেনাবেচার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইজারাদার কমিটি পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক মনিটরিং ব্যবস্থা রয়েছে। পশু ও ব্যাবসায়ীদের ভালো পরিবেশে থাকার সুব্যবস্থা করা হয়েছে এবং জাল টাকা চিহ্নিত করার জন্য ডিজিটাল মেশিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অন্যদিকে এই হাঁটে বিভিন্ন জাতের কোরবানীর পশু পাওয়া যায়। এজন্যই এই হাঁটটি দিন-দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

Categories: ঢাকা,ব্যবসা ও অর্থনীতি

Tags: