বরগুনায় স্ত্রী-সন্তানকে পোড়ানোর পর যুবকের আত্মহত্যা

বরগুনায় স্ত্রী-সন্তানকে পোড়ানোর পর যুবকের আত্মহত্যা

বরগুনা প্রতিনিধি : বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় সৎ মেয়ে ও স্ত্রীকে ঘুমন্ত অবস্থায় পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পোড়ানোর কয়েকঘণ্টা পর অভিযুক্ত বেলাল হোসেন (৩৫) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সাড়ে ১০টার দিকে পাথরঘাটা উপজেলার সদর পাথরঘাটা ইউনিয়নের পূর্ব হাতেমপুর গ্রামের খালের পাশে একটি আম গাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এর আগে বুধবার (১২ জুন) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে ইউনিয়নের রুহিতা গ্রামে বসতঘরে বেলাল হোসেন তার স্ত্রী ও সৎ মেয়ের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এতে ঘটনাস্থলেই আগুনে পুড়ে সৎ মেয়ে কারিনা আক্তারের (১০) মৃত্যু হয়। দগ্ধ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন স্ত্রী শাজেনূর বেগম (৩০)।

এলাকাবাসী জানান, স্ত্রী-মেয়ের গায়ে আগুন দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর অভিযুক্ত বেলাল হোসেন প্রায় ৬ কিলোমিটার দূরে গিয়ে একটি আম গাছে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তার শরীরেরও বিভিন্ন স্থানে আগুনে পুড়ে যাওয়ার চিহ্ন রয়েছে।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হানিফ শিকদার বলেন, পূর্ব হাতেমপুর গ্রামে খাল পাড়ে আম গাছে ঝুলন্ত মরদেহ দেখে স্থানীয়রা থানায় জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহটি আগুনে দগ্ধ বেলাল হোসেনের বলে স্থানীয়রা জানান।

এদিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো শাজেনূর বেগমের অবস্থাও সংকটাপন্ন।

Categories: বরিশাল

Tags: