ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনায় কুড়িগ্রামের পাঁচ উপজেলার ছয়টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত

ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনায় কুড়িগ্রামের পাঁচ উপজেলার ছয়টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত

ফিরোজ কবির কাজলঃ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে কুড়িগ্রামের পাঁচ উপজেলার ছয়টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

কেন্দ্রগুলো হলোঃ
কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার শিবরাম প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান জানান,বেলা ১১টার দিকে একদল লোক ৭ নম্বর বুথে ঢুকে ব্যালট পেপারে সিল মেরে বাক্সে ঢোকায়।এরপর আরও ব্যালট পেপার দেওয়ার জন্য আমাকে চাপ সৃষ্টি করে। ফলে বাধ্য হয়ে এই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়।

নাগেশ্বরীর কুটি নাওডাঙ্গা ফোরকানিয়া এবতেদায়ী মাদ্রাসা কেন্দ্রে সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে ব্যালট বই ছিনতাই করে সিল মারার অভিযোগে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয় বলে জানায় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সাদিকুর রহমান।

উলিপুর মদিনাতুল উলুম সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মিজানুর রহমান জানান, সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটের দিকে ওই কেন্দ্রে হামলা চালিয়ে বেশ কিছু ব্যালট বই ছিনতাই করা হয়। পরে কিছু উদ্ধার করা সম্ভব হলেও কিছু পাওয়া যায়নি।হোকোডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার আবু বকর সিদ্দিক জানান, সকাল ৮টায় ভোট শুরুর পর ৯টা ১০ মিনিটে একদল লোক সাত নম্বর বুথে হামলা চালিয়ে একটি ব্যালট বাক্স, তিনটি ব্যালট বই ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

চিলমারী উপজেলার খালেদা শওকত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ব্যালট বই ছিনতাইয়ের পর ওই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয় বলে জানা গেছে।

রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের ধনার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাই করে জোর করে বাক্সে ঢোকানোর চেষ্টা করলে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয় বলে জানা গেছে।

রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) হাফিজুর রহমান জানান,বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে।

কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলা নিয়ে হাইকোর্টে রিটের পরিপ্রেক্ষিতে স্থগিতাদেশ প্রদান করায় এই উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়

Categories: রংপুর

Tags: