বুড়িচংয়ের ময়নামতি গরু বাজারের সরকারি জমী দখল করে মার্কেট নির্মাণ

বুড়িচংয়ের ময়নামতি গরু বাজারের সরকারি জমী দখল করে মার্কেট নির্মাণ

স্টাফ রিপোর্টার : ময়নামতিতে কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমী দখলের পায়তারা করছে প্রভাবশালী ভুমিখেকো মহল! স্থানীয় ভুমি কর্মকর্তাদের জানালেও অদৃশ্য কারনে কোন ব্যাবস্থা নিচ্ছেন না তারা।
শতধিক বছরের ঐতিহ্যবাহী ময়নামতি গরু বাজারের কোটি টাকার সরকারি জমী দখল করে চলছে মার্কেট ও বাড়ি নির্মাণ। কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার কুমিল্লা সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন ময়নামতি সাহেব বাজারের সরকার কর্তৃক ইজারাকৃত ঐতিহ্যবাহী গরু বাজারটি দখল করে বাড়ি ও মার্কেট নির্মাণ করছে স্থানীয় ভূমিখেকো প্রভাবশালী মহল। স্থানীয় মুরুব্বিদের ভাষ্যমতে প্রায় ২শত বৎসর ধরে এ গরু বাজারটি এলাকার ঐতিহ্যের অংশ। ৮১ শতাংশ সরকারি খাশ ভুমির ওপর বাজারটির ইজারা প্রদান করে লক্ষ লক্ষ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা হয় প্রতি বছর। বাজারের বর্তমান ইজারাদার ময়নামতি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ জানান, শতাধিক বছরের ঐতিহ্যবাহী এ বাজারটি নির্বিঘ্নে চলে আসলেও কয়েকদিন আগে হঠাৎ করেই জমীর মালিকানা দাবী করে স্থানীয় বিল্লাল হোসেন। মালিকানা দাবীর প্রেক্ষিতে জমীর কাগজপত্র দেখতে চাইলে তা দেখাতে পারেন নি তিনি। বাজারের পশ্চিমাংশের প্রায় ১২/১৩ শতাংশ জমী দখল করে মার্কেট এবং বাড়ী নির্মানের কাজ শুরু করেন। বাজারের ইজারাদার হিসেবে বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করছি কিন্ত তিনি তা মানেন নি। এবিষয়ে ময়নামতি তফসিল অফিসের সহঃ ভুমি কর্মকর্তা কে জানালেও তিনি কোন ব্যাবস্থা গ্রহণ করেন নি।
এ বিষয়ে জমীর মালিনাকা দাবীকারি স্থানীয় ব্যাবসায়ী বিল্লাল হোসেন বলেন, সরকার আমাদের পৈতৃক সম্পত্তির ৮১ শতাংশ (হাল দাগ -১৮৮) অধিগ্রহণ করে। এর পশ্চিম অংশের ১৮৯ হাল দাগে আমাদের আরো ১০ শতাংশ ভুমি রয়েছে। এ বিষয়ে ডিসি মহোদয় বরাবরে দরখাস্ত করেছি। আমি সরকারি জমী নয় আমার পৈতৃক সম্পত্তির ওপর নির্মাণ কাজ করছি।

ময়নামতি ইউনিয়ন তফসিল অফিসের সহঃ ভুমি কর্মকর্তা সফিউল্লাহ্ বলেন, আমাদের কাছে সরকারি ভুমি দখলের এমন কোন অভিযোগ নেই।
বুড়িচং উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা (সার্ভেয়ার) আনিসুজ্জামান বলেন, বিল্লাল হোসেন বাজারের পশ্চিমাংশে দশ শতাংশ জমীর মালিকানা দাবী করে ডিসি মহোদয় বরাবরে দরখাস্ত করেছে। আমরা এবং সড়ক কতৃপক্ষ সড়ক ও বাজারের সরকারি জমী নির্ধারণ করে দিয়ে এসেছি। দখলকৃত জমী থেকে তার সীমানা (টিনের বেড়া) সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে।

Categories: কুমিল্লা

Tags: