একদিনে আমি সর্বনিন্ম ১৪ ঘণ্টা কাজ করে থাকি

একদিনে আমি সর্বনিন্ম ১৪ ঘণ্টা কাজ করে থাকি

বিনোদন ডেস্ক : চলচ্চিত্র অভিনেতা অনন্ত জলিল বলেছেন, দেশে আমার একটা হাইটেক ইণ্ডাষ্ট্রি করার পরিকল্পনা ছিলো। যেটাতে কোম্পানির ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়াররা থাকবে, যারা শুধু মেশিন অপারেটরের কাজ করবে। ইউটিউবে তার এক সাক্ষাতকার থেকে এতথ্য জানা গেছে।

অনন্ত জলিল বলেন, আমি যে প্রজেক্টটা করেছি সেটা পুরোটাই হাইটেক মেশিন। যা ওয়াই-ফাই কানেক্ট করা এবং এর থেকে সফ্টওয়ার আপগ্রেড করা যাবে। যা জার্মানি, অষ্ট্রেলিয়া, তুরস্ক এসকল দেশের সাথে সফ্টওয়ার আপডেট করে কানেক্ট থাকতে পারবো। প্রায় ৫০-৬০ হাজার ইউরো ব্যয় হবে প্রত্যেকটা মেশিনের দাম। আমি এবং বর্ষা ফ্রান্সে গিয়ে দেখেছি, আমাদের দেশের অনেক ছেলেরা ৮-১০ লাখ টাকা খরচ করে ফুল বিক্রি করে। তারপরই আমি সিদ্ধান্ত নেই আমাকে এমন একটা কিছু করতে হবে যাতে, এগুলো রুখে দেওয়া সম্ভব হয়।
তিনি আরও বলেন, মাঝখানে আমি ইসলাম প্রচারে মনোনিবেশ করেছি, তাবলীগ করার জন্য বিভিন্ন দেশে গিয়েছি। ড. জাকির নায়েককে বাংলাদেশে আনার উদ্যোগটাও নেওয়া হয়েছিলো। কিন্তু ড. জাকির নায়েকের চ্যানেল বন্ধ হয়ে যাবার পর সেটা আরও কঠিন হয়ে যায়। এছাড়া তার নিরাপত্তার একটা ব্যাপারও রয়েছে। তাছাড়া ড. নায়েকের বিভিন্ন দেশে যে সকল প্রোগ্রাম করতেন এখন অনেকটা বন্ধ করে দিয়েছেন। এমত অবস্থায় তাকে দেশে আনাটা খুব কঠিন ও ঝুঁকি পূর্ণ। এসবকিছু মিলিয়ে আমার বিরতি। আমার প্রতিদিনের রুটিন হচ্ছে, ফজর নামায শেষ করে ব্যায়াম করি । এরপর মার্শাল আর্ট প্রাকটিস করি। তার পরে ফ্যাক্টরিতে আসি বিভিন্ন কাজে সারা দিনই ব্যস্ত থাকি।

Categories: বিনোদন

Tags: