রামপালে কাঠপুড়িয়ে তৈরি করছে কয়লা, দুষীত হচ্ছে পরিবেশ

রামপালে কাঠ পুড়িয়ে তৈরি করছে কয়লা, দুষীত হচ্ছে পরিবেশ

মো: সোহরাব হোসেন রতন, বাগেরহাট থেকেঃঃ রামপালে অবৈধভাবে নিষিদ্ধ চুল্লি তৈরি করে কাঠ কয়লা তৈরি করে পরিবেশ ও প্রতিবেশের ক্ষতি করার অভিযোগ উঠেছে সাইফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওই ব্যক্তিকে চুল্লিতে কাঠ পোড়ানো বন্ধ করার নির্দেশ প্রদান করার পর তিনি আবারও কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি করছেন। কাঠপোড়ানো ধোয়ায় চরম ভাবে দুষীত হচ্ছে পরিবেশ ধ্বংশ হচ্ছে সবুজ বেষ্টনী।

এবিষয়ে উপজেলার উজলকুড় গ্রামের মৃত রুহল মোল্যার পুত্র বাদশা মোল্যা ৮ মাস পূর্বে রামপাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন। ওই অভিযোগে জানাগেছে, একই গ্রামের মোঃ জবেদ আলীর পুত্র মোঃ সাইফুল ইসলাম ৬/৭ বছর পূর্বে উজলকুড় গ্রামের ভোলা নদীর পাড়ে ৪ থেকে ৫টি কাঠ পোড়ানো চুল্লি তৈরি করেন। চুল্লিতে তিনি কাঠ পোড়ানোর ফলে ওই এলাকায় ধোয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। এতে ওই এলাকার জন জীবন ও গাছ পালার মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন। খবর পেয়ে জন প্রতিনিধি সমাজ কর্মিরা এলাকায় গিয়ে ঘটনার সত্যতা দেখতে পান।

এ ব্যাপারে চুল্লির মালিক সাইফুল ইসলাে মর সাথে কথা বললে তিনি জানান, জেলা প্রশাসকের অফিস থেকে অনুমোদন এনেই কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি করছি। তার কাছে জেলা প্রশাসকের অনুমোদনের কপি দেখতে চাইলেসে দেখাতে ব্যার্থ।চুল্লিতে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরির ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তুষার কুমার পাল এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, ওই ব্যক্তিকে নোটিশ করে বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছি। এরপর ও যদি সে নির্দেশ অমান্য করে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি করে তবে দ্রুত তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এলাকাবাসী অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার দাবি জানিয়েছেন।##

Categories: অপরাধ ফলোআপ,খুলনা,টপ নিউজ,প্রধান নিউজ,ব্যবসা ও অর্থনীতি,মতামত বিশ্লেষণ,সম্পাদকীয়,সারা দেশ